SKIN CARE

শীতে সুন্দরী থাকতে চান? এভাবেই চটপট ত্বকের যত্ন নিয়ে নিন

শীত আসতে আর হাতে গোনা কয়েকটা দিন বাকি। হেমন্তের বাতাসে ঠান্ডা ঠান্ডা ভাব| শীতের আগমনের এই সময়টাতে ত্বককে আদর যত্নে মুড়ে রাখুন। নাহলেই ত্বক রুক্ষ, শুষ্ক ও মলিন হতে দেখা যায়| বাইরের ধুলোবালি, শীতল আবহাওয়ায় নারী-পুরুষ উভয়ের ত্বকের ক্ষেত্রেই বিভিন্ন ধরণের সমস্যা যেমন ত্বক খসখসে হয়ে যাওয়া, হাত-পা ফেটে যাওয়া, ব়্যাশ দেখা দেয়| বিশেষ করে যাদের ত্বক শুষ্ক, তাঁদের অবস্থা আরও খারাপ হয়। তাই শীতের এই সময়টাতে ত্বকের স্বাস্থ্য রক্ষার্থে দরকার একটু বাড়তি যত্ন ও সর্তকতা। তৈলাক্ত ত্বকই এই সময় বেশ শুষ্ক হয়ে যায়, আর যদি এমনিতেই শুষ্ক ত্বক হয় তো কথাই নেই| শীতে পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে থাকে। এই সময় ত্বকের একটু যত্ন আত্তি না করলে বেশ অসুবিধার মুখে পড়তে হয়।


সারাবছর ধরে যেমন সাবান ব্যবহার করুন না কেন এই সময় কিন্তু ত্বককে ময়শ্চার করে এমন সাবান ব্যবহার করা উচিত। গ্লিসারিন যুক্ত সাবান হলে শুষ্কতার ভাব খানিকটা কমে গিয়ে ত্বকের আদ্রতা বজায় থাকে। এই সময় বাজারে বিভিন্ন সংস্থার বডিলোশন পাওয়া যায়। সেসব পছন্দমতো ব্র্যান্ড বেছে নিয়ে ব্যবহার করতে পারেন। ত্বককে নিয়মিত ময়শ্চার করলে কনুই, কবজির কাছে সাদা খড়ি ওঠা ভাব দূর হবে। হাত ও পায়ের ত্বক মসৃণ থাকবে। মিঠে রোদ পিঠে নিয়ে পিকনিক করতে এই সময় বেশ লাগে। তবে রোদ্দুর তো অল্প বিস্তর ত্বকে ক্ষতিও করে। তাই সানস্ক্রিন লোশন ব্যবহার করতে ভুলবেন না। নাহলে সানট্যান পড়তে পারে। শীতকালে তো বিয়েবাড়ি থেকে পার্টি হরেকরকম অনুষ্ঠানের সমাবেশ। সেসব জায়গায় মধ্যমণি হতে গেলে ত্বকের যত্ন তো করতেই হচ্ছে। তবে সবসময় তো আর লাইফস্টাইল মেনটেন করতে পার্লারে গিয়ে রূপটান করানো সম্ভব হয় না, তাই আমরা সাধারণত বাজার চলতি বিউটি প্রোডাক্ট ব্যবহার করে থাকি। চাইলে নিজেও রান্নাঘরেই বানিয়ে নিতে পারেন ত্বকচর্চার উপকরণ।



এখানেই রইল কিছু হোম রেমেডির সুলুক সন্ধান। এক টেবিল চামচ শসার রস ও এক চামচ টম্যাটোর রস মিশ্রনটি নিয়মিত মুখে লাগান। দেখবেন অল্পদিনেই কেমন উজ্জ্বলতা ফিরেছে। গোল গোল করে কাটা শসার টুকরো চোখের উপরে দিয়ে বিশ্রাম করুন। দেখবেন চোখের নিচে কালো দাগ দূর হবে এবং ডার্ক সার্কেল চলে যাবে| রাতে এক টেবিল চামচ ওটমিল ভিজিয়ে রেখে সকালে  পেস্ট করে নিয়ে এর সঙ্গে এক টেবিল চামচ টক দই মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে ব্যবহার করুন।   ড্রাই টু নরমাল ত্বকের জন্য এই প্যাক বিশেষ উপকারি| কমলালেবুতে থাকা ভিটামিন সি মুখের বলিরেখা দূর করে৷ কমলালেবুর খোসা, সরবাটা, ময়দা বা বেসনের ব্যবহারে খুলবে রূপ। এই শীতে যত কমলালেবু খাওয়া হয়, তার খোসা না ফেলে রোদে শুকিয়ে গুঁড়ো করে রাখুন, কাজে দেবে। চকলেটে উপস্থিত ক্যাফেইন থেকে ত্বকে আসে উজ্জ্বলতা৷ সেই সঙ্গে চকলেটের ফ্যাটও ময়শ্চরাইজার হিসেবে ভালোই কাজ করে৷ ডার্ক চকোলেট গলিয়ে হালকা গরম থাকতে থাকতে তার সঙ্গে মধু মিশিয়ে ফেস প্যাক বানিয়ে নিয়ে মুখে, গলায়, ঘাড়ে, হাতে তা লাগিয়ে ১৫ মিনিট রেখে তার পর সার্কুলার মোশনে হাত ঘুরিয়ে ম্যাসাজ নিয়ে মুখে, সামান্য গরম জলে ধুয়ে ময়শ্চরাইজার লাগালে ভালো ফল পাওয়া যায়। এই সময় খাবারের দিকেও নজর রাখতে হবে। অতিরিক্ত পরিমাণে জল পান করা, মরশুমী ফল, শাকসবজি ডায়েটে রাখুন। শীতের সময় নানারকম খাবারদাবারের প্রলোভন এড়ানো বেশ কষ্টকর। কিন্তু এড়াতে তো হবেই। নাহলে বেশি তেলমশলা খেয়ে শুধু পেটই নয় ত্বকেরও বারোটা বেজে যেতে পারে।

 

Post Author: bongmag

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।