Dal Lake

Kashmir: কাশ্মীর! এক বিভাজিত আখ্যান (চতুর্থ পর্ব)

কাশ্মীরে (Kashmir) ১৯৯০ এর পর বহু জঙ্গি আত্মসমর্পণ করেছিল। তাদের সরকারি রি-হ্যাবে রেখে তারপর একটা শংসাপত্র দিয়ে ছাড়া হয়৷ যেখানে লেখা থাকে এঁরা আত্মসমর্পণ করেছিলেন। বাড়ির দেওয়ালে সেই শংসাপত্র ল্যামিনেট করে টাঙিয়ে রাখা হয়। কখনও কখনও সেনারা এসে দেখে যায়।

Poem

কবিতার খাতা

আড়ালের এক মস্ত সুযোগ,

দূরের জিনিস ঠাহর হয় না নাগাল না পেলে

Durga Puja: সেকাল বনাম একাল-বঙ্গদেশে দুর্গাপুজোর সাতকাহান

যুগ যুগ ধরে বাঙালি মেতে ওঠে তার প্রাণের উৎসব দুর্গাপুজোয় (Durga Puja)৷ যুগের পরিবর্তন, সময়ের অভাবে পুজোর অনেক বিধি নিয়মে বদল এসেছে।

Everest Base Camp

Everest Base Camp: সাগরমাথার পাদদেশে

সালটা ২০১৩, চলেছি এভারেস্ট বেস ক্যাম্প (Everest Base Camp) ট্রেকে৷ হাওড়া স্টেশন থেকে যাত্রা শুরু, রওনা দিলাম মিথিলা এক্সপ্রেসে৷ বিকেল ৩টে বেজে ৪৫-এ ছাড়ল ট্রেন৷ গন্তব্য তো আপনাদের জানা৷

Kalki

কালান্তরের পটভূমি

আলো আঁধারিতে ছেয়ে আছে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত বিশাল হলঘর৷ ঘরের একেবারে মাঝখানে রাখা বড় গোল টেবিল ঘিরে বসে আছেন আটজন। প্রত্যেকেই বয়েসের ভারে ন্যুব্জ। তারমধ্যে একজন আপাদমস্তক চাদরে ঢেকে বসে আছেন। দ্বিতীয় জনের উন্মুক্ত দেহে শুধুই উত্তরীয় সম্বল। তৃতীয় জনের পরণে সাফারি স্যুট। চতুর্থ জন পরে আছেন দক্ষিণ ভারতীয় ধাঁচে সাদা লুঙ্গি, ফতুয়া৷ বাম কাঁধে শোভা পাচ্ছে  উত্তরীয়৷ মৃদু আলোয় যেখানে সবাই ঠিকভাবে দৃশ্যমান নন, সেখানেই কিনা কালো চশমায় চোখ ঢেকেছেন পঞ্চম জন৷ পরণে ফুলহাতা কালো শার্টের সঙ্গে চাপা ট্রাউজারে অদ্ভুত লাগছে তাঁকে।

Mahasweta Devi

লাঞ্ছিত “অরণ্যের অধিকার”, লালগড়ের পথে মহাশ্বেতা

“বন্দুক আর বুলেট, সেপাই দলে দলে, অন্য দিকে বিরশা জাগেন জঙ্গলে জঙ্গলে৷” জঙ্গলমহলে মহাশ্বেতা দেবী প্রসঙ্গে আলোচনার শুরুতে কবীর সুমনের গানের এই লাইনটি মনে পড়ে গেল।

Durgapur

Durgapur: দুর্গাপুরের ইতিকথা

ইশকুলে ভুগোল পরীক্ষায় একটা প্রশ্নের উত্তর প্রায়শই দিতে হত। “পশ্চিমবঙ্গের রাঢ় অঞ্চল কোনটি?” উত্তরটা অবধারিত ভাবেই দুর্গাপুর (Durgapur)।

Simultala Palace

এলেম কোথায় বেশ, ড্যাঞ্চি বাবুর দেশ

“টিলা টিলা শিমুলতলায় ভিলা ভিলা বাড়ি…” কথাটা কতোই শোনা। সেই শিমুলতলাকে নিজের চোখে দেখতে, বাঙালির পশ্চিম তথা “ড্যাঞ্চি বাবুর দেশ” নিজের চোখে দেখতে আজ সকালেই পৌঁছালাম বিহারের সিমলা তথা শিমুলতলায়।

Ritu

ঋতুর বিপরীতে

[…]

Thiksey Monastery

শান্তির সংঘারামে

সলতে পাকানোর পর্বটা শুরু হয়েছিল অন্তত বছর ২০ আগে। শঙ্কু মহারাজের “লাদাখের পথে” পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই শুরু হয়ে যায় মানস ভ্ৰমণ। সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবারে সাধ আর সাধ্যের মধ্যে সময়ের ফারাক থেকেই যায়। আমাদেরও তাই হল। ২০০০ সালে দেখা স্বপ্নের পূর্ণতাপ্রাপ্তি ঘটল ২০১৯-এ এসে৷