JHURO SIMUI

ইদের দিনের মন মাতানো ডিশ ঝুরো সিমুই

ঝুরো সিমুই যদি মেনুতে থাকে তাহলে মনটা ভাল হয়ে যায়। ইদের দিন হাজারো মিষ্টান্নের মধ্যে হালকা ঝুরঝুরে সিমুই পাতে পড়লে জিভ স্বাদ বদলের সুযোগ পায়। মিষ্টি পদ খেতে খেতে ক্লান্ত হয়ে যাওয়া অতিথিও এমন ডিশ দেখলে খুশিই হন। এবার আসি উপকরণের কথায়।


 

উপকরণ:

আড়াইশো গ্রাম বাদামি রঙের সিমুই, এক কাপ দুধ ও এক কাপ উষ্ণ গরম জল, স্বাদমতো চিনি, এক টেবিল চামচ ঘি অথবা সয়াবিন তেল। কাজুর কুচি, কিশমিশ ও তিনটে এলাচ ও এক টুকরো দারচিনি।



প্রণালী:



প্রথমে প্যাকেটের মধ্যে থাকা সিমুইকে সমান টুকরো করে ভেঙে নিন। এরপর ফ্রাইং প্যানে ঘি গরম হলে থেঁতো করে রাখা গোটা এলাচ ও দারচিনি দিয়ে নাড়তে থাকুন। গন্ধ বেরলেই সিমুইের টুকরো ফ্রাইং প্যানে দিয়ে দিন, ভাল করে নাড়তে থাকুন। সমস্ত উপাদানটিই ভাল করে ঘিয়ে ভেজে নিতে হবে। তাই একেবারে সিমে দিয়ে ভাজুন, নাহলে তলাটা ধরে যেতে পারে। ভাল করে ঘিয়ে ভাজা হয়ে গেলে সিমুই থেকেই সুন্দর শাহী গন্ধ ছাড়বে। তখন কাপে রাখা দুধের সবটাই ঢেলে দিয়ে নাড়তে থাকুন। এরপর স্বাদমতো চিনি দিন। খেয়াল রাখবেন সিমুইয়ের থেকে জলীয় দ্রবণ কোনওমতেই যেন বেশি না হয়। নাড়তে নাড়তেই বুঝতে পারবেন, দুধের সবটাই টেনে নিয়েছে। কাপে থাকা গরম জলের কিছুটা দিয়ে ফের নাড়তে থাকুন। হালকা হাতে নাড়বেন, নাহলে সিমুইয়ের টুকরো গলে যেতে পারে। তলার সিমুই উপরে তুলে দিন, মিনিট দুয়েক ঢাকা দিয়ে রান্না হতে দিন। ঢাকা সরিয়ে নেড়ে দেওয়ার সময় দেখুন সিমুই সিদ্ধ হয়েছে কি না, যদিও ততক্ষণে চিনির জল সিমুইকে নরম করে ফেলবে। নাহলে আরও একটু গরম জল দিন। হালকা হাতে নাড়ুন, জল পুরো মরে এলে গ্যাস বন্ধ করে দুমিনিট ঢাকা দিয়ে রাখুন। তারপর একটি প্রশস্ত প্লেটে সিমুই ঢেলে দিয়ে ঠান্ডা হতে দিন, ফ্রিজারে রাখবেন না। ঠান্ডা হয়ে এলে দুটি কাঁটা চামচের সাহাষ্যে সিমুইয়ের টুকরোকে পরস্পরের থেকে ছাড়িয়ে দিন। দেখবেন ঝুরো সিমুই রেডি, উপর থেকে কাজুর টুকরো, কিশমিশ ও নারকেল কুচি ছড়িয়ে পরিবেশন করন মন মাতানো ঝুরো সিমুই।

Post Author: bongmag

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।