Gurudev

“আজ প্রাতে আমার জন্মদিন উৎসব”

ড. গৌরব চৌধুরী

 

তিথি – ২৫শে বৈশাখ, ১২৯৪ বঙ্গাব্দ, স্থান – কলকাতার ৪৯ নম্বর পার্কস্ট্রিটে জ্যোতিরিন্দ্রনাথ ঠাকুরের বাড়ি, সময় – কাকভোর

এক কিশোরীর হাতের থালায় একজোড়া ধুতি-চাদর, নিজের হাতে গাঁথা বকুল ফুলের মালা, বাজার থেকে কিনে আনা বেলফুলের মালার সাথে আরো কিছু ফুল। সেই কিশোরী উল্টোডিঙির বাগান বাড়ি থেকে নিঃশব্দে পার্কস্ট্রাটের বাড়িতে এসে প্রবেশ করল তার মামার ঘরে। তিনি তখনও ঘুমিয়ে। ফুল, মালা ও কাপড় সযত্নে মামার পায়ের কাছে রেখে কিশোরীটি প্রণাম করল। তারপর সেই অসামান্য রূপবান পুরুষকে মৃদুস্বরে ঘুম থেকে জাগিয়ে বলল, “আজ তোমার জন্মদিন’।



কিশোরী ছিলেন সরলা দেবী আর মামা হলেন ২৬ বছরের যুবক রবীন্দ্রনাথ। পাশে ছিল জ্যোতিরিন্দ্রনাথের ঘর। এক মুহূর্তে যেন জাদুকাঠির স্পর্শে বাড়ির আর সবাই জেগে উঠলেন। জন্মদিনের উৎসব নতুনভাবে শুরু হল। যতদুর জানা যায় এইটিই গুরুদেবের প্রথম জন্মোৎসব। সরলা দেবী তাঁর স্মৃতিতে লিখেছেন,”আজ দেশব্যাপী রবীন্দ্রজন্মদিন অনুষ্ঠান, তাও মেজমামীদের [সত্যেন্দ্রনাথ ও জোড়াসাঁকোয় কোনওদিন হয়নি। সেটি ধরালুম আমি আমার ভক্তিপ্রাবল্যে। . . . রবিমামার প্রথম জন্মদিন উৎসব আমি করাই।”



এর ১২ বছর পরে ৩৮ বছর বয়সে কবি রচনা করলেন নিজের জন্মদিনের জন্য প্রথম গান – “ভয় হতে তব অভয়মাঝে”। আজ গুরুদেবের ১৫৯তম জন্মজয়ন্তী। আর তাঁর জন্মদিন পালনের পথ ১৩৩ বছরে পদার্পণ করল একেবারে নিভৃতে, অনাড়ম্বরভাবে। বর্তমান বিশ্ব এক ভয়াবহ মহামারীর কবলে। কিন্তু মন মানে না এই নির্জন পরবাস। “দুখ-ভয়-সঙ্কটে” থেকেও গুরুদেবকে স্মরণ করতে বারে বারে স্মৃতির পথ ধরে ফিরে যাই পুরোনো ঘন্টাতলার বটের ছায়ায়, যেখানে শালবীথিতে শুনতে পাই “শ্যাম-শিশুর কলরব”। ওই যেন ভেসে আসছে আনন্দ পাঠশালা কি সন্তোষ পাঠশালার শিশুদের সমস্বরে গাওয়া “আপন হতে বাহির হয়ে বাইরে দাঁড়া” বা “এদিন আজি কোন ঘরে গো খুলে দিল দ্বার”।



তারপর একে একে গান পাঠভবন, শিক্ষাসত্র, পল্লী সম্প্রসারণ কেন্দ্রের সংগীত বিভাগ আর সংগীত ভবনের ছেলেমেয়েদের গান। উপাসনা গৃহ, শান্তিনিকেতন গৃহ, আম্রকুঞ্জ শালবীথি, মাধবীবিতান, দ্বারিক, উদয়ন, কোনার্ক, শ্যামলী, পুনশ্চ, উদীচি, ছাতিমতলা, বকুলবীথি, বেণুকুঞ্জ, গৌরপ্রাঙ্গন, সিংহসদন গুরুদেবের জন্মোৎসবে সবই যেন মুখরিত। শুধু একটাই কথা আকাশবাণীর মতো আকাশবীণায় থাকেনি।  কিছু পুরনো  অথচ চির নতুন দেখা, না-দেখার মধ্যে দিয়ে পঁচিশে বৈশাখের স্মৃতিচারণ হোক আজ।

Post Author: bongmag

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।