AIR INDIA

এয়ার ইন্ডিয়ার মানবিক মুখ, রোজাদার জল চাইতেই সঙ্গে পেলেন স্যান্ডউইচ

দেশটার নাম ভারতবর্ষ, এখানে ধর্মীয় বিভাজন যে কোনওভাবেই মানুষের মনে মালিন্যকে ঠাঁই দেয়নি, তা ফের প্রমাণিত হল। মাঝ আকাশে যখন বিমান তখন যাত্রী বিমান সেবিকার কাছে এক বোতল অতিরিক্ত পানীয়জল চাইলেন, তখনই অবাক হওয়ার পালা। শুধু জলই নয় সঙ্গে খাবারও দিয়ে গেলেন ওই বিমান সেবিকা। এই ঘটনায় অভিভূত প্রখ্যাত সাংবাদিক রিফাত জাওয়াইদ। ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার গোরক্ষপুর থেকে দিল্লিগামী এয়ার ইন্ডিয়ার বিমানে। ইতিমধ্যেই এই সুন্দর ঘটনাটি টুইট করে দেশবাসীকে জানিয়েছেন ওই সাংবাদিক, পাশাপাশি এয়ার ইন্ডিয়ার বিমান সেবিকাকে কৃতজ্ঞতা জানাতে দেরি করেননি। এই টুইটটি ভাইরাল হতেই প্রশংসায় পঞ্চমুখ নেটদুনিয়া।


জানা গিয়েছে, অফিসের কাজে গোরক্ষপুর গিয়েছিলেন রিফাত। রমজান মাস চলছে, তিনি রোজা রেখেছেন। বিমান যখন মাঝ আকাশে তখনই ইফতারের সময় হয়ে যায়। সঙ্গে সঙ্গেই কর্তব্যরত বিমান সেবিকার কাছে জল চান তিনি। যাত্রীর চাহিদামতো এক বোতল জল এগিয়ে দেন ওই বিমানসেবিকা। রিফাত তাঁকে বলেন, যে তিনি রোজা করছেন।তাই যদি আর এক বোতল জল পাওয়া যায় তাহলে তিনি খুব উপকৃত হন। এর পরেই ওই যাত্রীকে আর কিছু বলার অবকাশ না দিয়ে আরও একটি জলের বোতল ও খাবার নিয়ে আসেন তিনি। রিফাত জাওয়াইদ কিছু বলার আগেই ওই বিমান সেবিকা জানান, তাঁর যদি আরও কিছু প্রয়োজন থেকে থাকে তাহলে নির্দ্বিধায় তিনি তা জানাতে পারেন। গোটা ঘটনায় যারপরনাই অবাক হয়েছেন ওই সাংবাদিক। বিমান সেবিকার কর্তব্যপরায়ণতা ও মানবিক মূল্যবোধে তিনি অভিভূত।

পরে টুইট বার্তায় রিফাত লেখেন, বিমানসেবিকা মঞ্জুলার মানবিকতায় তিনি মুগ্ধ। ইফতারের জন্য এক বোতল অতিরিক্ত জল চেয়েছিলেন তিনি। মঞ্জুলা তাঁকে জলের বোতলের সঙ্গেই দুটি স্যান্ডউইচ দেন। এই ঘটনায় নেটিজেনরাও খুশি। একজন রোজাদারকে ইফতারের সময় পানীয়জলের সঙ্গে খাবার দিয়ে যে শুধু মানবিকতার নিদর্শন দিয়েছেন ওই বিমানসেবিকা তা নয়। তিনি পুণ্যও অর্জন করেছেন। এমনটাই মনে করছে নেটদুনিয়া। এই ঘটনা এয়ার ইন্ডিয়ার যাত্রী পরিষেবায় নতুন পালক যোগ করল তাতে কোনও সন্দেহ নেই।

Post Author: bongmag

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।