DOG LOVES CAT

সন্তান স্নেহ, মা হারা বিড়াল ছানাদের লালন করতে ‘বাবা’ সাজল বছর ছয়েকের সারমেয়

সারমেয়র থেকে ভাল পোষ্য আর কিছু হয় না। যাঁরা সারমেয়প্রেমী তাঁরাই এই বিষয়ের সঙ্গে একমত হবেন। কিন্তু বিড়ালকে দেখলেই যে কুকুর তেড়ে যায় এসত্যও কারও অজানা নয়। বাড়ির মধ্যে যদি গুটলি পাকিয়ে বিড়ালকে খুনসুটি করতে দেখেছে তাহলে রাস্তার সারমেয়ও ঘেউ ঘেউ রবে বিরক্তি প্রকাশ করতে ছাড়ে না। সেখানে পোষ্য হলে তো কথাই নেই। কিন্তু এও সত্য ভাল বন্ধু, আশ্রয়দাতা দয়ালু প্রাণের অধিকারি সেই সারমেয়-ই। এজায়গা অন্য কেউ নিতে পারবে না। তাইতো অপছন্দের বিড়ালকেও যত্নে আশ্রয় দিয়ে মা হয়ে ওঠে পোষ্য সারমেয়।

এমন ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই সাড়া পড়েছে। রজার নামের এক পোষ্য সারমেয় সন্তান স্নেহে লালন পালন করছে বিড়াল ছানাদের। রজারের মালিক রেডিট, তিনি সেই অপত্য স্নেহের ছবি টুইটারে পোস্ট করতেই নেটিজেনদের প্রশাংসা কুড়িয়েছে রজার। রজার নিজেই রেডিট পরিবারে সন্তান স্নেহে লালিত পালিত হয়। মাত্র ছ’বছর বয়সেই গোটা রেডিট পরিবারের চোখের মণি হয়ে উঠেছে সে। বাড়ির সকলে অফিস ও কাজকর্মে বেরিয়ে গেল একাএকাই গোটা বাড়িতে ঘুরে বেড়ায় রজার। সময়মতো খাওয়াদাওয়া সেরে একটু ঘুমিয়েও নেয়। সেই সঙ্গে চলে বাড়ি পাহারা দেওয়ার পালা। রেডিটরা বাড়ি ফিরলেই আদরে গদগদ হয়ে কোলে খেলা করা ছাড়া তখন তো তার আর কোনও কাজই নেই। এদিকে একদিন অফিস থেকে ফেরার পথে তিন খানা বিড়াল ছানা নিয়ে এল রেডিট। তাই দেখে প্রথমে কিছুটা কুঁকড়ে গেলেও সে যে রেডিট পরিবারের একজন সদস্য তা মনে করাতে ভুলল না। পরম যত্নে মা-হার তিন বিড়াল ছানাকে স্নেহের আশ্রয় দিল। সমস্ত বিপদে থেকে আগলে রাখার পাশাপাশি, কখন খীভাবে তারা খেলবে তানিয়ে যেন রজারের দুশ্চিন্তার শেষ নেই। একদিন ঘটল বিপত্তি, এদিকে মায়ের আদর পেয়ে তিন বিড়াল ছানা বেশ সচল হয়ে উঠেছে। বাড়ির মধ্যেই ঘুরে বেড়াচ্ছিল, আচমকাই নেকড়ে বিশেষ কোয়েট তাদের উপরে হামলা করে।



এদিকে ছানাদের আতঙ্কিত স্বর শুনেই ততক্ষণে ঘটানস্থলে পৌঁছেছে রজার। কিন্তু চালাক কোয়েট তিন ছানাকেই মুখে করে পরাগ পার। রেডিটা সন্ধ্যা বাড়ি ফিরতেই দেখ রজার শোকে মুহ্যমান। কয়েকদিন খেলাও করল না সে। ফের গোটা পাঁচেক বিড়াল ছানা বাড়িতে আসতেই রজারের খুশি ধরে না। আবারও উথলে ওঠা মাতৃস্নেহে পাঁচজনকেই বড় করতে শুরু করে রজার। রেডিট সেই স্নেহের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করতেই রজারই এখন মূল আকর্ষণ হয়ে উঠেছে।

 

Post Author: bongmag

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।